দেশ গঠনে প্রথম আলোকে সঙ্গে চান পাঠক

দেশ গঠনে প্রথম আলোকে সঙ্গে চান নাটোরের পাঠক। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নাটোর শহরের একটি রেস্তোরাঁর মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় পাঠকেরা তাঁদের এই প্রত্যাশার কথা জানান।
বিকেল চারটায় সভা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও বেলা সাড়ে তিনটা থেকেই পাঠকেরা আসতে শুরু করেন। তাঁদের সঙ্গে যুক্ত হন সুধীজনেরা।
প্রথম আলোর নাটোর প্রতিনিধি মুক্তার হোসেনের স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে মতবিনিময় শুরু হয়। পরে প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক সোহরাব হাসান, মহাব্যবস্থাপক (সার্কুলেশন) এ বি এম জাকারিয়া, বিক্রয় ব্যবস্থাপক আমিরুল ইসলাম পত্রিকাটির বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন।

images
সোহরাব হাসান বলেন, ‘আমি নতুনদের গ্রাহক বা পাঠক বলব না। তাঁরা প্রথম আলোর নতুন বন্ধু। পুরোনো বন্ধুদের সঙ্গে তাঁরা যুক্ত হয়েছেন। এ জন্য তাঁদের অভিনন্দন জানাচ্ছি।’ তিনি আরও বলেন, পাঠকপ্রিয়তা বাড়াতে প্রথম আলো কাজ করে যাচ্ছে। নতুন গ্রাহকেরা যোগ দেওয়ায় পত্রিকার কর্মীরা আরও ভালো কাজ করার উৎসাহ পাবেন। তিনি উপস্থিত পাঠকদের কাছে প্রথম আলোর ভালো-মন্দ নিয়ে জানতে চান।
সোহরাব হাসানের আহ্বানে মতামত তুলে ধরেন নাটোর এন এস সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যাপক ও নাট্যব্যক্তিত্ব অলক মৈত্র, নাটোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সুশান্ত কুমার ঘোষ, সাবেক সভাপতি আবু আহসান, নজরুল মঞ্চের সভাপতি গোলাম কামরান, সাবেক ব্যাংকার মাহফুজ আলম, দৈনিক প্রান্তজন পত্রিকার সম্পাদক মো. সেলিম, উত্তরবঙ্গ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ও নাটোর প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত সভাপতি জালাল উদ্দিন প্রমুখ।
তাঁরা প্রথম আলোর প্রতি নতুন লেখক সৃষ্টি করার পাশাপাশি তরুণদের অপরাধে জড়িয়ে পড়া নিয়ে গবেষণা করারও আহ্বান জানান।
লাঠি-বঁাশি সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আবদুস সালাম বলেন, প্রথম আলোকে তিনি সামাজিক আন্দোলন বলে মনে করেন।
এর আগে প্রথম আলো নির্মিত কয়েকটি প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়। সবশেষে সোহরাব হাসান পাঠকদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন।

দেশ গঠনে প্রথম আলোকে সঙ্গে চান পাঠক

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s